আদিবাসী তকমায় সর্বেসর্বা প্রমাণের এ কোন এজেন্ডা?

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশে কারা আদিম অধিবাসী? কারা এই ভূ-খণ্ডের আদিম ভূমিপুত্র? আর কারা-ই বা বিভিন্ন দেশ বা অঞ্চল হতে আগত? এমন অনেক প্রশ্ন যখন আদিবাসী সনদের দাবির কথা বলে তখন ইতিহাস পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, বাংলাদেশের ভূখণ্ডে কখনোই কোনো আদিবাসীর বসবাস ছিল না। কোনো স্থানে স্মরণাতীতকাল থেকে বসবাসকারী আদিমতম জনগোষ্ঠী যাদের উত্পত্তি, ছড়িয়ে পড়া এবং বসতি স্থাপন সম্পর্কে বিশেষ কোনো ইতিহাস জানা নেই।

প্রখ্যাত নৃতত্ত্ববিদ মর্গানও আন্তর্জাতিক আদিবাসী ইতিহাস বিশ্লেষণ করে একই মত দিয়েছেন। বাংলাদেশে আদিবাসীদের অস্তিত্ব রয়েছে কিনা এব্যাপারে তিনি জানান, পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে বসবাসকারী বিভিন্ন ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীগুলোর ইতিহাস ঘেঁটে দেখা যায়, তারা ওই অঞ্চলের অকৃত্রিম ভূমিপুত্র বা আদিবাসী নয়। বরঞ্চ বাঙালিরাই তাদের আগে বসতি গড়েছেন। মূলত, নৃতাত্ত্বিক সংজ্ঞায় আদিবাসী হচ্ছে- কোনো অঞ্চলের আদি ও অকৃত্রিম ভূমিপুত্র বা Son of the soil।

সংবিধান অনুযায়ী আমাদের দেশে কোনো আদিবাসী নেই। তবে বিভিন্ন উপজাতি, ক্ষুদ্র জাতিসত্তা ও নৃ-গোষ্ঠী সম্প্রদায়ের মানুষ রয়েছে। তাছাড়া বাংলাদেশে বাঙালি জাতিই একমাত্র অধিবাসী যারা মোট জনসংখ্যার ৯৬.৩% এবং অন্যান্য নৃ-গোষ্ঠী সমূহ ৩.৭%। তাই ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীকে আদিবাসী হিসেবে স্বীকৃতির কোনো যৌক্তিকতা নেই। তবুও একটি বিশেষ মহল ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীকে আদিবাসী হিসেবে স্বীকৃতি আদায়ের জন্য অসৌজন্যতামূলক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। যার বেশিরভাগই জাতিগত অসন্তোষ সৃষ্টির অভিযোগে অভিযুক্ত। আর সংবিধানই যেখানে বিষয়টি পরিষ্কার করে দিয়েছে তাই এ নিয়ে কারো মধ্যে দ্বিধা থাকার কথা নয়।

প্রমাণাদি বিশ্লেষণে দেখা যায়, ২০০৮ সালের ৯ সেপ্টেম্বর পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে পার্বত্য চট্টগ্রামের ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী সম্প্রদায়ের মানুষকে উপজাতি বলে আখ্যা দেয়া হয়। এর দায়িত্বে ছিলেন চাকমা সম্প্রদায়ের ব্যারিস্টার দেবাশীষ রায়। সেখানে ব্যারিস্টার দেবাশীষ রায় নিজেই ছিলেন ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীকে উপজাতি হিসেবে বৈধ সনদ প্রণয়নের দায়িত্বে। কিন্তু আন্তর্জাতিক নানা এজেন্ডা বাস্তবায়নে এবং পার্বত্য অঞ্চলে নিজেদের সর্বেসর্বা প্রমাণ করার জন্য এখন তিনি নিজেই উপজাতিদের আদিবাসী হিসেবে স্বীকৃতির দাবির জন্য সোচ্চার হয়েছেন। নিজেই নিজ সম্প্রদায়ের মানুষকে উপজাতি আখ্যা দিয়ে আবার এখন আদিবাসী দাবি করছেন তিনি। এটা কি নিজ মতের স্ববিরোধিতা নয়?

শুধু তাই নয়, নিজেদের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে হলে বৈদেশিক যোগাযোগও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আর বিদেশ ভ্রমণে বিপত্তি থাকায় জাতীয় পরিচয় পত্রের জন্য ২০২১ সালে সন্তু লারমাকে দেখা গিয়েছিল রাঙামাটি জেলা নির্বাচন অফিসে। অতি গোপনীয়তার মাধ্যমে ২৯ আগস্ট আইডি নিতে সব কাজ সম্পন্ন করেন। এরমধ্যে তিনি ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হন।

ঠিক কি কারণে এতোদিন পরে ভোটার তালিকায় নিজের নাম তুললেন, এমন প্রশ্নের সদুত্তর তিনি দিতে পারেননি। অজুহাত হিসেবে করোনা টিকা গ্রহণের কথা উল্লেখ করলেও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স জানাই ভিন্ন কথা।

মূলত বিশাল বড় সিন্ডিকেটের মাধ্যমে আদিবাসী সনদের জন্য তারা ভাগ হয়ে কাজ করছে। এর পেছনের কারণ এখন পরিষ্কার।

ভূ রাজনীতি বিশ্লেষণে দেখা যায়, আদিবাসী স্বীকৃতি দেওয়ার ফলে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব বিপন্ন হতে পারে। কেননা আদিবাসী আন্দোলনকারীরা রাষ্ট্রবিরোধী নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। পাহাড়কে নিজেদের আলাদা রাজ্য বানানোর পাঁয়তারাও তাদের দীর্ঘদিনের। যার জাল একটু একটু করে বপনের আভাসও পাওয়া যায়।

দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষা, দেশকে বহিঃশত্রুর হাত থেকে নিরাপদ রাখা, জাতিগত অসন্তোষ নির্মূল, পাহাড়ে অশান্তিরোধ ইত্যাদি কারণে তাই এখন ভাবার সময় এসেছে; সময় এসেছে শক্ত পদক্ষেপ নেয়ার। বাংলাদেশের একটুকরো ভূমিও যেন কালো আঁধারে নিমজ্জিত না থাকে সেজন্য ৫৬ হাজার বর্গমাইলকে পাহারা দেয়ার দয়িত্ব আমাদের সবার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও দেখুন

সমাজসেবার আড়ালে যৌনতেষ্টা মেটাচ্ছেন বহুগামী সোনিয়া

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin নিউজ ডেস্ক: সোনিয়া আক্তার স্মৃতি। সমাজসেবার আড়ালে মিটিয়ে নিচ্ছেন নিজের যৌনতেষ্টা। বিএনপির রাজনীতিতে সক্রিয় হওয়ায় তার শয্যাসঙ্গী বেশিরভাগই দলটির নেতারা। তবে যে পুরুষ তাকে তুষ্ট করতে পারে না তার সঙ্গে দ্বিতীয়বার বিছানায় যান না সোনিয়া। তাই ছাত্রদলের সভাপতি রওনক হাসান শ্রাবণের সঙ্গে সম্পর্ক ভেঙ্গে যায় সোনিয়ার। কারণ শ্রাবণ […]

বিস্তারিত

খুনি জিয়ার পাপাচার ও পাকিস্তানপ্রীতি

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin নিউজ ডেস্ক: পঁচাত্তরের ১৫ আগস্টে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু হত্যার পেছনে দায়ী জিয়াউর রহমান এক সময় প্রেসিডেন্ট সায়েমকে জোরপূর্বক ক্ষমতা থেকে সরিয়ে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখল করে। এরপর ক্ষমতায় বসে জিয়াউর রহমান তার আসল চরিত্রের বহিঃপ্রকাশ ঘটায়। বঙ্গবন্ধু হত্যাপরিকল্পনার কথা জানা থাকা সত্ত্বেও বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বাধা দেয়া তো দূরের কথা […]

বিস্তারিত

উত্তপ্ত রাজনীতিতে নিষ্প্রভ নুরের দল

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin ২০২১ সালের ২৬ অক্টোবর বেশ ঢাকঢোল পিটিয়ে নতুন রাজনৈতিক দল ‘গণঅধিকার পরিষদ’ গঠন করেছিলেন ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর। গণঅধিকার পরিষদ গঠনের পর রাজনীতিতে নানা চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছিল। অনেকেই মনে করেছিলেন, এই দল নতুন ধারার সূচনা করবে। কিন্তু এক বছর যেতে না যেতেই প্রায় হারিয়ে গেছে নুরের […]

বিস্তারিত