লন্ডনে প্রধানমন্ত্রীর আগমন: ফের তারেক-মালিকের কুপরিকল্পনা ফাঁস

নিউজ ডেস্ক : সদ্য প্রয়াত ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের শেষকৃত্যে বিশ্ব নেতাদের আগমন ঘিরে স্মরণকালের সবচেয়ে কঠোর নিরাপত্তার আয়োজন করছে লন্ডন পুলিশ। ইতিমধ্যে রানির শেষকৃত্যে অংশ নিতে যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডনের উদ্দেশে যাত্রা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় তিনি ও তার সফরসঙ্গীরা রাজধানীর শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ঢাকা ত্যাগ করেন। বাংলাদেশ বিমানের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইট তাদের নিয়ে গেছে। রানির অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া শেষে প্রধানমন্ত্রী নিউইয়র্কের উদ্দেশে যাত্রা করবেন। সেখানে তিনি জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৭তম অধিবেশনে যোগ দেবেন।

এরই মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর লন্ডনে আগমন ঘিরে কঠিন নাশকতার ছক এঁকেছে বিএনপি। যুক্তরাজ্য বিএনপি সভাপতি এম এ মালিককে সঙ্গে নিয়ে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসনের একটি গোপন বৈঠকে এমনই ইঙ্গিত পাওয়া গেছে।

বৈঠকে বলা হয়, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লন্ডনে আসার সঙ্গে সঙ্গে তার বিরুদ্ধে মিছিল করা হবে। সঙ্গে প্রতিনিয়তই বিএনপির বিভিন্ন নেতাকর্মীসহ তারেক রহমান নিজে ফেসবুক লাইভে এসে সরকারের বিরুদ্ধে প্রোপাগান্ডা ছড়িয়ে দেশের সুশৃঙ্খল পরিবেশকে বিনষ্ট করার চেষ্টা করা হবে। সেই সঙ্গে বিদেশে প্রধানমন্ত্রীর মান-সম্মান নষ্টের সর্বোচ্চ চেষ্টাও করবে তারা।

বিশিষ্টজনরা বলছেন, নীতিগতভাবে দেশের মানুষ সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে সন্তুষ্ট হওয়ায় দেশে স্বাভাবিক পরিস্থিতি বিরাজ করছে। যা ভয় পাইয়ে দিয়েছে বিরোধীপক্ষকে। তারা আশঙ্কা করছে, দেশের মানুষ যদি এভাবে সরকারের কাজে সন্তুষ্ট হতে থাকে, তবে বিএনপির ক্ষমতায় আসার স্বপ্ন আকাশকুসুমে পরিণত হবে। আর এ কারণেই লন্ডনে বসে তারেক রহমান দেশ অচল করার কঠিন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হচ্ছেন।

এর আগে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচন ঠেকানোর জন্য সারা দেশে আগুন সন্ত্রাস শুরু হয়েছিলো। সরকার পতনের আন্দোলনের নামে বাস, ট্রাকসহ বিভিন্ন স্থাপনায় আগুন লাগিয়ে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করা হয়েছিলো। যদিও জনগণ সে আগুন সন্ত্রাসকে ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছিলো এবং এর বিরুদ্ধে স্বতঃস্ফূর্ত জনপ্রতিরোধ গড়ে উঠেছিলো।

সাম্প্রতিক সময়ে নতুন করে আগুন সন্ত্রাস ছড়িয়ে দেয়ার একটা নীলনকশা তারেক রহমানের নেতৃত্বে তৈরি করা হয়েছে বলে একটি সূত্র জানিয়েছে। সেই সঙ্গে ২০১৪ সালের ঘটনার বিভিন্ন ফুটেজ নিজেরা ফেসবুকে প্রকাশ করে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করতে চাইছে। মূলত সরকারকে বিব্রত করতেই তাদের এতো সব পরিকল্পনা।

এ বিষয়ে, রাজনৈতিক বিশ্লেষক এ. আরাফাত বলেন, দেশের চলমান শান্তিপূর্ণ পরিবেশ যারা নষ্ট করতে চায়। তাদের প্রতিহত করা প্রয়োজন। দেশের মানুষ শান্তিতে থাকলে যারা ঈর্ষান্বিত হয়। তাদের বয়কট করা প্রয়োজন। নিশ্চয়ই যারা ক্ষমতার লোভে বাংলার মাটিকে বিক্রি করে দিতে চায়।তারা আর যাই হোক, দেশের মানুষের বন্ধু হতে পারে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও দেখুন

সমাজসেবার আড়ালে যৌনতেষ্টা মেটাচ্ছেন বহুগামী সোনিয়া

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin নিউজ ডেস্ক: সোনিয়া আক্তার স্মৃতি। সমাজসেবার আড়ালে মিটিয়ে নিচ্ছেন নিজের যৌনতেষ্টা। বিএনপির রাজনীতিতে সক্রিয় হওয়ায় তার শয্যাসঙ্গী বেশিরভাগই দলটির নেতারা। তবে যে পুরুষ তাকে তুষ্ট করতে পারে না তার সঙ্গে দ্বিতীয়বার বিছানায় যান না সোনিয়া। তাই ছাত্রদলের সভাপতি রওনক হাসান শ্রাবণের সঙ্গে সম্পর্ক ভেঙ্গে যায় সোনিয়ার। কারণ শ্রাবণ […]

বিস্তারিত

খুনি জিয়ার পাপাচার ও পাকিস্তানপ্রীতি

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin নিউজ ডেস্ক: পঁচাত্তরের ১৫ আগস্টে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু হত্যার পেছনে দায়ী জিয়াউর রহমান এক সময় প্রেসিডেন্ট সায়েমকে জোরপূর্বক ক্ষমতা থেকে সরিয়ে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখল করে। এরপর ক্ষমতায় বসে জিয়াউর রহমান তার আসল চরিত্রের বহিঃপ্রকাশ ঘটায়। বঙ্গবন্ধু হত্যাপরিকল্পনার কথা জানা থাকা সত্ত্বেও বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বাধা দেয়া তো দূরের কথা […]

বিস্তারিত

উত্তপ্ত রাজনীতিতে নিষ্প্রভ নুরের দল

Share this… Facebook 0 Twitter Telegram Linkedin ২০২১ সালের ২৬ অক্টোবর বেশ ঢাকঢোল পিটিয়ে নতুন রাজনৈতিক দল ‘গণঅধিকার পরিষদ’ গঠন করেছিলেন ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর। গণঅধিকার পরিষদ গঠনের পর রাজনীতিতে নানা চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছিল। অনেকেই মনে করেছিলেন, এই দল নতুন ধারার সূচনা করবে। কিন্তু এক বছর যেতে না যেতেই প্রায় হারিয়ে গেছে নুরের […]

বিস্তারিত