জামায়াতের নতুন কৌশল

মুক্তিযুদ্ধ ও ধর্মীয় মূল্যবোধের বিষয়টিকে গুরুত্বের সঙ্গে যুক্ত করে নতুন দলের গঠনতন্ত্র তৈরির কাজ প্রায় শেষ করে ফেলেছে জামায়াত।

সম্প্রতি ঢাকা মহানগর উত্তরের থানা আমিরদের এক বৈঠকে এমন তথ্য জানানো হয়েছে। সেখানে উত্তরের গুরুত্বপূর্ণ এক নেতা বলেন, ভিন্ন নামে জামায়াতের সংগঠন হবে। আইনজীবীরা নতুন গঠনতন্ত্র নিয়ে কাজ করছেন। তবে এখনই এ নিয়ে আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য দেওয়ার প্রয়োজন নেই।

এ ব্যাপারে অন্য নেতাদের সতর্ক থাকারও পরামর্শ দেন তিনি। নতুন নামে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) নিবন্ধন না পেলে নিবন্ধিত কোনো দলে তারা মিশে যাবে। দলটির দায়িত্বশীল পর্যায়ের একটি সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। তবে নতুন রাজনৈতিক দলের জন্য কয়েকটি নাম প্রস্তাব করা হলেও কোনোটিই এখন পর্যন্ত চূড়ান্ত হয়নি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জামায়াতে ইসলামীর ঢাকা মহানগর উত্তরের একটি থানার আমির বৈঠকের কথা স্বীকার করে বলেন, এ নিয়ে দলের দায়িত্বশীলরা কাজ করছেন। তবে ঢাকা মহানগর উত্তরের মজলিশে শূরা সদস্য ও হাতিরঝিল পশ্চিম থানার আমির মুহাম্মদ আতাউর রহমান সরকার বলেন, এ বিষয়ে আমার কিছু জানা নেই।

এ প্রসঙ্গে জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও কেন্দ্রীয় প্রচার বিভাগের সেক্রেটারি মতিউর রহমান আকন্দ বলেন, যখন কোনো কিছু বলার মতো হবে, তখন অবশ্যই জানানো হবে। এটা তো গোপন কিছু নয়, হলে তো আমরা প্রকাশ্যে ঘোষণা দিয়েই করব।

২০ দলীয় জোট নিয়ে সম্প্রতি জামায়াত আমির ডা. শফিকুর রহমানের দলীয় ফোরামে দেওয়া বক্তব্যের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। সেখানে ডা. শফিকুর রহমান নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেন, আমরা এতদিন একটা জোটে ছিলাম। এজন্য আপনারা হয়তো ভাবছেন কিছু হয়ে গেছে নাকি? আমি বলি, হয়ে গেছে। ২০০৬ সাল পর্যন্ত এটি একটি জোট ছিল। ২০০৬ সালের ২৮ অক্টোবর জোট তার দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হয়েছে। সেদিন বাংলাদেশ পথ হারিয়েছিল। সেটা আর ফিরে আসেনি।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, জামায়াত যুদ্ধাপরাধীর দল হিসেবে অনেক আগেই পরিচিত। তাদের দলের অনেক নেতারই এ অপরাধে ফাঁসি হয়েছে। তাই তারা যে নামেই দল গঠন করে নির্বাচনে আসতে চাক না কেন, জনগণ তা মেনে নেবে না।

তারা আরো বলেন, জামায়াতের কাজ হচ্ছে কৌশলে তাদের দলে মেধাবীদের প্রবেশ করিয়ে নিজেদের স্বার্থ আদায় করা। এজন্য তারা যে নামেই আত্মপ্রকাশ করুক না কেনো তারা আর কোনোদিনই বাংলার রাজনীতিতে সুবিধা করতে পারবে না।

দলটির দায়িত্বশীল নেতারা জানিয়েছিলেন, বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের সঙ্গে জামায়াতে ইসলামী আছে, জোট ছাড়েনি। এ অবস্থায় বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর উত্তরের থানা আমিরদের বৈঠকে ভিন্ন নামে জামায়াতের সংগঠন করা হবে বলে জানানো হয়।

দলটির এক প্রভাবশালী নায়েবে আমির বলেন, নতুন দল মুক্তিযুদ্ধ, দেশ ও সমাজের সংস্কৃতিনির্ভর ধর্মীয় মূল্যবোধকে সামনে রেখেই কাজ করবে। আমরা দেশে ধর্মীয় মূল্যবোধের প্রতিফলন দেখতে চাই। তবে সেক্যুলার নয়।

নতুন দল যেকোনো সময়ে আত্মপ্রকাশের প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে-এমনটি জানিয়ে এই নেতা বলেন, ‘পরিবেশ-পরিস্থিতির ওপর আত্মপ্রকাশের বিষয়টি নির্ভর করছে।

জামায়াতের নতুন উদ্যোগ প্রসঙ্গে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, জামায়াত নতুন নামে আসতে চায় বা না চায় সেটা পরের কথা। তাদের প্রথম কাজ লুকোচুরি না করে একাত্তরের ভূমিকার জন্য ক্ষমা চাওয়া। এরপর চাইলে তারা নতুন নামে রাজনীতি শুরু করতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও দেখুন

‘ফিল্ডার গাড়িতে গরু চুরি’ করে বিএনপি নেতা

নিউজ ডেস্ক : দীর্ঘদিন ধরে সিলেট, মৌলভীবাজারের বিভিন্ন এলাকায় গরু চুরি হওয়ার ঘটনায় আতঙ্কে ছিল এই এলাকার বাসিন্দারা। অনেক পাহারা বসিয়েও তারা চোর ধরতে পারছিল না। ধরবেই বা কীভাবে- চোর যে খুব ধুরন্ধর। গরু চুরি করে বিলাসবহুল গাড়িতে করে। গরু চুরি করে গাড়িতে তুলে সবার সামনে দিয়েই চলে যায় কিন্তু কেউ বুঝতে পারে না। সোমবার […]

বিস্তারিত

লোকসমাগমের জন্য ৫ কোটি টাকা চাইলো রাজশাহী বিএনপি!

নিউজ ডেস্ক : আগামী ৩ ডিসেম্বর রাজশাহীতে বিএনপির সর্বকালের সর্ববৃহৎ সমাবেশ করতে চায় রাজশাহী বিএনপিসহ কেন্দ্রীয় নেতারা। অন্যান্য বিভাগীয় সমাবেশের চেয়ে বেশি লোকসমাগমের জন্য চলছে দিনরাত প্রস্তুতি। রাজশাহী বিএনপির নেতাকর্মীরা বিরিয়ানির দাওয়াত আর নগদ টাকা দিচ্ছেন বাড়ি বাড়ি গিয়ে। তবে এক চাঞ্চল্যকর তথ্য জানা গেছে, লোকসমাগমের জন্য দলীয় হাইকমান্ডের কাছে ৫ কোটি টাকা দাবি করেছে […]

বিস্তারিত

কোথায় ফালু? কোথায় খালেদা?

নিউজ ডেস্ক: বিগত চার বছর রাজনীতির বাইরে কখনো কারাগার, কখনো হাসপাতাল আবার কখনো গুলশানের বাসায় দিন পার করছেন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। এসময়ে অসংখ্য নেতাকর্মী খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে আসলেও একটি বারের জন্যেও যোগাযোগ করেনি বিএনপি চেয়ারপারসনের সাবেক উপদেষ্টা ও দুর্নীতিগ্রস্ত পলাতক ব্যবসায়ী মোসাদ্দেক আলী ফালু। এমনকি পরবর্তীতে খালেদা জিয়া তার বাসভবন ফিরোজাতে […]

বিস্তারিত