‘ফিল্ডার গাড়িতে গরু চুরি’ করে বিএনপি নেতা

নিউজ ডেস্ক : দীর্ঘদিন ধরে সিলেট, মৌলভীবাজারের বিভিন্ন এলাকায় গরু চুরি হওয়ার ঘটনায় আতঙ্কে ছিল এই এলাকার বাসিন্দারা। অনেক পাহারা বসিয়েও তারা চোর ধরতে পারছিল না। ধরবেই বা কীভাবে- চোর যে খুব ধুরন্ধর। গরু চুরি করে বিলাসবহুল গাড়িতে করে। গরু চুরি করে গাড়িতে তুলে সবার সামনে দিয়েই চলে যায় কিন্তু কেউ বুঝতে পারে না।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) মৌলভীবাজারে বিলাসবহুল গাড়ি দিয়ে গরু চুরির সময় তিনজনকে হাতে নাতে আটক করে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী।
গ্রেপ্তারের পর পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক মিজানুর রহমান বাবলা এমন অভিনব কায়দায় দীর্ঘদিন ধরে গরু চুরি করে আসছে। তার সঙ্গী আরও দুইজন গাড়িচালক জগলু মিয়া ও এমরানুল হক জনি। তারাও বিএনপির কর্মী। বিএনপির চলমান বিভাগীয় সমাবেশেও যোগ দিতেন তারা। শুধু গরু চুরি নয়, বিএনপির সমাবেশ থেকে মোবাইল, মানিব্যাগও চুরি করতেন তারা।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এমন তথ্য জানতে পেরেছে মৌলভীবাজার মডেল থানা পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে, সদর উপজেলার গিয়াসনগর ইউনিয়নের মোকামবাজারের নিতেশ্বর গ্রাম থেকে তাদের আটক করা হয়। এসময় চুরির কাজে ব্যবহৃত ঢাকা মেট্রো গ ২৩-১০৯৪ নম্বরের বিলাসবহুল এক্স ফিল্ডার মডেলের গাড়িটি জব্দ করেছে পুলিশ। পাশাপাশি তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

এদিকে রাজনগর উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক মো. জুসেফ খান জানান, বিষয়টি জানাজানি হওয়ায় তাৎক্ষনিক দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও অনভিপ্রেত কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ এনে মিজানুর রহমান বাবলাকে পদ থেকে অব্যাহতি ও দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, বিএনপির জন্য বিষয়টি খুবই লজ্জাজনক। এত বড় রাজনৈতিক দলের নেতা যদি গরু চুরি করে তাহলে পরিষ্কার বোঝা যায় তাদের নীতি নৈতিকতা কোথায়! বিএনপির সিনিয়র নেতাদের সাথে এসব নেতাদের কোনো পার্থক্য নেই। বিএনপি পুরোটাই একটা চোরের দল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *